বৃহস্পতিবার | ১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম

ঢাবির শিক্ষক রহমত উল্লাহর একাডেমিক কার্যক্রম চালাতে বাধা নেই

প্রকাশিত :
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আইন অনুষদের শিক্ষক মো: রহমত উল্লাহকে একাডেমিক কার্যক্রম থেকে সাময়িক অব্যাহতির সিদ্ধান্ত স্থগিত করে হাইকোর্ট যে আদেশ দিয়েছিলেন, তা বহাল রয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে ঢাবি কর্তৃপক্ষের করা লিভ টু আপিল নিষ্পত্তি করে বোরহান উদ্দিনের নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন। একইসাথে হাইকোর্টে এ-সংক্রান্ত রুল দ্রুত নিষ্পত্তি করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে অব্যাহতির বিরুদ্ধে রহমত উল্লাহর করা এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে গত বছরের ৮ জুন হাইকোর্ট রুলসহ আদেশ দেন। অব্যাহতি সংক্রান্ত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত স্থগিত করেন হাইকোর্ট। এর বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল (আপিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন) করে ঢাবি কর্তৃপক্ষ। রহমত উল্লাহর পক্ষে বৃহস্পতিবার শুনানিতে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আহসানুল করিম ও আইনজীবী সৈয়দা নাসরিন। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মোহাম্মদ হোসেন। পরে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আহসানুল করিম সাংবাদিকদের বলেন, ‘হাইকোর্টের আদেশে স্থগিতাদেশ না দিয়ে আপিল বিভাগ এ-সংক্রান্ত রুল দ্রুত হাইকোর্টে নিষ্পত্তি করতে বলেছেন। এর মধ্য দিয়ে রহমত উল্লাহকে সাময়িক অব্যাহতির বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত স্থগিত করে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রইল। ফলে রহমত উল্লাহর একাডেমিক কার্যক্রম চালাতে আইনগত বাধা নেই। গত বছরের ১৭ এপ্রিল ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসের আলোচনা সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির তৎকালীন সভাপতি রহমত উল্লাহ মুজিবনগর সরকারের সদস্যদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে খন্দকার মোশতাক আহমদের প্রতিও শ্রদ্ধা জানান বলে অভিযোগ ওঠে। খন্দকার মোশতাক আহমদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির তৎকালীন সভাপতি ও আইন অনুষদের রহমত উল্লাহকে একাডেমিক-প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এর বৈধতা চ্যলেঞ্জ করে তিনি হাইকোর্টে রিট করেন। সূত্র : ইউএনবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আইন অনুষদের শিক্ষক মো: রহমত উল্লাহকে একাডেমিক কার্যক্রম থেকে সাময়িক অব্যাহতির সিদ্ধান্ত স্থগিত করে হাইকোর্ট যে আদেশ দিয়েছিলেন, তা বহাল রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রুয়ারি) হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে ঢাবি কর্তৃপক্ষের করা লিভ টু আপিল নিষ্পত্তি করে বোরহান উদ্দিনের নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন। একইসাথে হাইকোর্টে এ-সংক্রান্ত রুল দ্রুত নিষ্পত্তি করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে অব্যাহতির বিরুদ্ধে রহমত উল্লাহর করা এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে গত বছরের ৮ জুন হাইকোর্ট রুলসহ আদেশ দেন। অব্যাহতি সংক্রান্ত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত স্থগিত করেন হাইকোর্ট। এর বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল (আপিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন) করে ঢাবি কর্তৃপক্ষ।

রহমত উল্লাহর পক্ষে বৃহস্পতিবার শুনানিতে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আহসানুল করিম ও আইনজীবী সৈয়দা নাসরিন। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মোহাম্মদ হোসেন।

পরে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আহসানুল করিম সাংবাদিকদের বলেন, ‘হাইকোর্টের আদেশে স্থগিতাদেশ না দিয়ে আপিল বিভাগ এ-সংক্রান্ত রুল দ্রুত হাইকোর্টে নিষ্পত্তি করতে বলেছেন। এর মধ্য দিয়ে রহমত উল্লাহকে সাময়িক অব্যাহতির বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত স্থগিত করে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রইল। ফলে রহমত উল্লাহর একাডেমিক কার্যক্রম চালাতে আইনগত বাধা নেই।

গত বছরের ১৭ এপ্রিল ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসের আলোচনা সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির তৎকালীন সভাপতি রহমত উল্লাহ মুজিবনগর সরকারের সদস্যদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে খন্দকার মোশতাক আহমদের প্রতিও শ্রদ্ধা জানান বলে অভিযোগ ওঠে।

খন্দকার মোশতাক আহমদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির তৎকালীন সভাপতি ও আইন অনুষদের রহমত উল্লাহকে একাডেমিক-প্রশাসনিক কার্যক্রম থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এর বৈধতা চ্যলেঞ্জ করে তিনি হাইকোর্টে রিট করেন।

সূত্র : ইউএনবি

আজকের সর্বশেষ সব খবর